ছোটগল্প ৩৩ – থাপ্পড় / Short Story 33 – Thappor (The Slap)

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Banaful-Thappor

থাপ্পড় – বনফুল

“… ওষুধের দাম বা ‘ফি’ বাকি পড়লে তা আর সহজে আদায় হয়না। বেশি তাগাদা করলে লোকে বলে চামার। সুতরাং তা-ও করা যায় না। যিনি ‘ফি’ বা ওষুধের দাম বাকি রেখেছেন, তাঁরও একটা চক্ষুলজ্জা আছে, সুতরাং তিনিও যথাসাধ্য এড়িয়ে চলতে চান। রাস্তায় দেখা হলে হয় ভান করেন যেন আমাকে দেখতে পান নি বা পট্‌ করে পাশের গলিতে ঢুকে পড়েন। পুনরায় যখন ওষুধ বা ডাক্তারের দরকার হয়, তখন আমার কাছে আর আসেন না, আর কারও শরণাপন্ন হন… “

শিক্ষিত বাঙ্গালিবাবুদের কপটতা আর গরীবদের আন্তরিকতার গল্প। বনফুলের কলমে।

Thappor (The Slap) – Banaful

Written by Banaful, a story of the hypocrisy of educated Bangalee Babus and the sincerity of the poor.

কবিতাগুচ্ছ ১১ – রবীন্দ্র অণুকাব্য (লেখন) / Anthology 11 – Rabindra Anukabya (Lekhan) (Epigrams and Verses by Rabindranath Thakur)

‘রবীন্দ্রনাথ’ শব্দটি শুনলেই আমাদের অনেকেই গুরুগম্ভীর সাহিত্যের কথা ভাবি। অথচ কবিগুরু যে কত ছোট ছোট অথচ গভীর অর্থপূর্ণ কাব্য রচনা করেছেন, তা আমাদের অনেকেই খেয়ালে রাখিনা। আধুনিক জীবনের ব্যস্ততা হয়ত আজ সেসব অনুকাব্যগুলোকে নতুন করে প্রাসঙ্গিক করে তোলে, তাই রবিঠাকুরের কিছু অনুকাব্য নিয়ে এই পোস্ট। অন্যসব পোস্টগুলোর চাইতে এটি একটু আলাদা, কারণ এটি স্থির নয়, অন্য পোস্টগুলোতে লেখা তোলার ফাঁকে ফাঁকে এটিতে আমি নতুন নতুন কবিতা তুলব, কখনো কখনো অনুবাদ আর কখনো কখনো ছবি সহ। কবিগুরুর হাতের লেখাও কিছু থাকবে এতে। পাঠকদের কাছে এই প্রয়াসটুকু ভাল লাগবে আশা করি।

The word ‘Rabindranath’ often makes many a Bangalee think about serious literature – not unreasonably, as many of his works make for more than heavy reading. However, such thought perhaps arises because many of us Bangalee millennials remain unaware of the short verses and epigrams which he wrote. Delightful and profound in their own right, they are perhaps even more relevant in our time constrained modern life. Hence this post. This one is a little different from the other ones, as I plan to periodically add fresh works by the poet to it, with occasional translations and somewhat relevant images. I hope the readers will find my effort worth their time.

লেখন  হতে তুলে দেওয়া কিছু অনুকাব্য / Some Verses from Lekhan

“এই লেখনগুলি সুরু হয়েছিল চীনে জাপানে। পাখায় কাগজে রুমালে কিছু লিখে দেবার জন্যে লোকের অনুরোধে এর উৎপত্তি। তারপরে স্বদেশে ও অন্য দেশেও তাগিদ পেয়েছি। এমনি করে এই টুকরো লেখাগুলি জমে উঠ্‌ল। এর প্রধান মূল্য হাতের অক্ষরে ব্যক্তিগত পরিচয়ের। সে পরিচয় কেবল অক্ষরে কেন, দ্রুতলিখিত ভাবের মধ্যেও ধরা পড়ে… অন্যমনস্কতায় কাটাকুটি ভুলচুক ঘটেছে। সে সব ত্রুটিতেও ব্যক্তিগত পরিচয়েরই আভাস রয়ে গেল॥

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (হাঙ্গেরী, ১৯২৬)

“The lines in the following pages had their origin in China and Japan where the author was asked for his writings on fans or pieces of silk.”

Rabindranath Thakur (Hungary, 1926)

(১/1)

Rabindranath Thakur-Fireflies (2)

স্বপ্ন আমার জোনাকি ,
দীপ্ত প্রাণের মণিকা ,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা ॥

My fancies are fireflies
specks of living light—
twinkling in the dark.

(Translated by the poet himself)

(২/2)

আমার লিখন ফুটে পথধারে
ক্ষণিক কালের ফুলে ,
চলিতে চলিতে দেখে যারা তারে
চলিতে চলিতে ভুলে ॥

The same voice murmurs
in these desultory lines
which is born in wayside pansies
letting hasty glances pass by.

(Translated by the poet himself)

(৩/3)

Rabindranath Thakur-Projapoti (2)

প্রজাপতি সেতো বরষ না গণে ,
নিমেষ গণিয়া বাঁচে ,
সময় তাহার যথেষ্ট তাই আছে ॥

The butterfly does not count years
but moments
and therefore has enough time.

(Translated by the poet himself)

(১৩/13)

দুঃখের আগুন কোন্ জ্যোতির্ময় পথরেখা টানে
বেদনার পরপার পানে॥

The fire of pain traces for my soul
a luminous path across her sorrow.

(Translated by the poet himself)

(১৪/14)

দেবমন্দির-আঙিনাতলে শিশুরা করেছে মেলা।
দেবতা ভোলেন পূজারি-দলে, দেখেন শিশুর খেলা॥

From the solemn gloom of the temple
children run out to sit in the dust,
God watches them play and forgets the priest.

(Translated by the poet himself)

(১৬/16)

Rabindranath Thakur-Akash Dharare

আকাশ ধরারে বাহুতে বেড়িয়া রাখে,
তবুও আপনি অসীম সুদূরে থাকে॥

Though he holds in his arms the earth-bride,
the sky is ever immensely away.

(Translated by the poet himself)

(১৭/17)

Rabindranath Thakur-Dur Eshechhilo Kachhe

          দূর এসেছিল কাছে–
ফুরাইলে দিন, দূরে চলে গিয়ে আরো সে নিকটে আছে।

One who was distant came near to me in the morning,
and still nearer when taken away by night.

(Translated by the poet himself)

(২০/20)

দাঁড়ায়ে গিরি, শির
মেঘে তুলে,
দেখে না সরসীর
বিনতি।
অচল উদাসীর
পদমূলে
ব্যাকুল রূপসীর
মিনতি॥

The lake lies low by the hill,
a tearful entreaty of love
at the foot of the inflexible.

(Translated by the poet himself)

(২২/22)

Rabindranath Thakur-Giri Megh (2)

মেঘ সে বাষ্পগিরি,
গিরি সে বাষ্পমেঘ,
কালের স্বপ্নে যুগে যুগে ফিরি ফিরি
এ কিসের ভাবাবেগ॥

Clouds are hills in vapour,
hills are clouds in stone
– a phantasy of time’s dream.

(Translated by the poet himself)

(২৫/25)

Rabindranath Thakur-Dui Tire Tar

দুই তীরে তার বিরহ ঘটায়ে
সমুদ্র করে দান
অতল প্রেমের অশ্রুজলের গান॥

The two separated shores mingle their voices
in a song of unfathomed tears.

(Translated by the poet himself)

(৩০/30)

হে আমার ফুল, ভোগী মূর্খের মালে
না হ’ক তোমার গতি,
এই জেনো তব নবীন প্রভাতকালে
আশিস তোমার প্রতি॥

(৩৬/36)

Rabindranath Thakur-Matir Prodip (2)

মাটির প্রদীপ সারা দিবসের অবহেলা লয় মেনে,
রাত্রে শিখার চুম্বন পাবে জেনে॥

The lamp waits through the long day of neglect,
For the flame’s kiss in the night.

(Translated by the poet himself)

(৫৯/59)

Rabindranath Thakur-Kuasha Giri (1)

কুয়াশা যদি বা ফেলে পরাভবে ঘিরি
তবু নিজমহিমায় অবিচল গিরি॥

The mountain remains unmoved
by its seeming defeat by the mist.

(Translated by the poet himself)

(৬০/60)

Rabindranath Thakur-Parbatamala (2)

পর্বতমালা আকাশের পানে চাহিয়া না কহে কথা,
অগমের লাগি ওরা ধরণীর স্তম্ভিত ব্যাকুলতা॥

Hills are the earth’s gesture of despair
for the unreachable.

(Translated by the poet himself)

(৬১/61)

একদিন ফুল দিয়েছিলে , হায় ,
কাঁটা বিঁধে গেছে তার ।
তবু , সুন্দর , হাসিয়া তোমায়
করিনু নমস্কার ॥

Though the thorn in thy flower pricked me,
O Beauty,
I am grateful.

(Translated by the poet himself)

(৬২/62)

হে বন্ধু , জেনো মোর ভালোবাসা ,
কোনো দায় নাহি তার —
আপনি সে পায় আপন পুরস্কার ॥

Let not my love be a burden on you, my friend,
know that it pays itself.

(Translated by the poet himself)

(৬৩/63)

স্বল্প সেও স্বল্প নয়, বড়োকে ফেলে ছেয়ে।
দু-চারিজন অনেক বেশি বহুজনের চেয়ে॥

The world knows that the few
are more than the many.

(Translated by the poet himself)

(৬৬/66)

Rabindranath Thakur-Budbud (2)

বুদ্বুদ  সে তো বদ্ধ আপন ঘেরে
শূন্যে মিলায়, জানে না সমুদ্রেরে॥

In its swelling pride
the bubble doubts the truth of the sea,
and laughs and bursts into emptiness.

(Translated by the poet himself)

(৬৮/68)

Rabindranath Thakur-Megher Dal

মেঘের দল বিলাপ করে
আঁধার হল দেখে ,
ভুলেছে বুঝি নিজেই তারা
সূর্য দিল ঢেকে ॥

My clouds, sorrowing in the dark,
forget that they themselves
have hidden the sun.

(Translated by the poet himself)

(৭১/71)

Rabindranath Thakur-Asim Akash (1)

অসীম আকাশ শূন্য প্রসারি রাখে,
হোথায় পৃথিবী মনে মনে তার
অমরার ছবি আঁকে॥

The sky remains infinitely vacant
for earth there to build its heaven with dreams.

(Translated by the poet himself)

(৭৫/75)

আকর্ষণগুণে প্রেম এক ক’রে তোলে।
শক্তি শুধু বেঁধে রাখে শিকলে শিকলে॥

Power said to the world, “You are mine.
The world kept it prisoner on her throne.
Love said to the world, “I am thine.”
The world gave it the freedom of her house.

(Inferred translation by the poet himself)

(৭৬/76)

Rabindranath Thakur-Mahataru Bahe (2)

মহাতরু বহে
বহু বরষের ভার।
যেন সে বিরাট
এক মুহূর্ত তার॥

The tree bears its thousand years
as one large majestic moment.

(Translated by the poet himself)

(৮০/80)

স্তব্ধ অতল শব্দবিহীন মহাসমুদ্রতলে
বিশ্ব ফেনার পুঞ্জ সদাই ভাঙিয়া জুড়িয়া চলে॥

The world is the ever-changing foam
that floats on the surface of a sea of silence.

(Translated by the poet himself))

(৮২/82)

গোঁয়ার কেবল গায়ের জোরেই বাঁকাইয়া দেয় চাবি,
শেষকালে তার কুড়াল ধরিয়া করে মহা দাবাদাবি॥

The clumsiness of power spoils the key
and uses the pickaxe.

(Translated by the poet himself)

(৮৬/86)

Rabindranath Thakur-Mor Kagojer Khelar Nouka 2

মোর কাগজের খেলার নৌকা ভেসে চলে যায় সোজা
বহিয়া আমার অকাজ দিনের অলস বেলার বোঝা॥

These paper boats of mine are meant to dance
on the ripple of hours,
and not to reach any destination.

(Translated by the poet himself)

(৯৬/96)

Rabindranath Thakur-Shishir Rabire (1)

শিশির রবিরে শুধু জানে
বিন্দুরূপে আপন বুকের মাঝখানে॥

The dew-drop knows the sun
only within its own tiny orb.

(Translated by the poet himself)

(৯৭/97)

Rabindranath Thakur-Apon Asim Nishfalatar 1

আপন অসীম নিষ্ফলতার পাকে
মরু চিরদিন বন্দী হইয়া থাকে॥

The desert is imprisoned in the wall
of its unbounded barrenness.

(Translated by the poet himself)

(১২২/122)

???????????????????????????????

সাগরের কানে জোয়ার-বেলায়
ধীরে কয় তটভূমি,
“তরঙ্গ তব যা বলিতে চায়
তাই লিখে দাও তুমি।’

সাগর ব্যাকুল ফেন-অক্ষরে
যতবার লেখে লেখা
চির-চঞ্চল অতৃপ্তিভরে
ততবার মোছে রেখা ॥

The shore whispers to the sea:
“Write to me what thy waves struggle to say.”
The sea writes in foam again and again
and wipes off the lines in a boisterous despair.

(Translated by the poet himself)

(১৩৪/134)

Rabindranath Thakur-Jibon Khatar Anek Patai

জীবন-খাতার অনেক পাতাই
এমনিতরো শূন্য থাকে;
আপন মনের ধেয়ান দিয়ে
পূর্ণ করে লও না তাকে।
সেথায় তোমার গোপন কবি
রচুক আপন স্বর্গছবি,
পরশ করুক দৈববাণী
সেথায় তোমার কল্পনাকে॥

(১৫৭/157)

Rabindranath Thakur-Chand Kahe (1)

চাঁদ কহে “শোন্‌ শুকতারা,
রজনী যখন হল সারা
যাবার বেলায় কেন শেষে
দেখা দিতে হায় এলি হেসে,
আলো আঁধারের মাঝে এসে
করিলি আমায় দিশেহারা।”

Before he sets,
the Moon yearningly calls out
to the Morning Star
“Why, at this moment of parting,
Did thee bind me
with thy smile?”

(১৫৯/159)

Rabindranath Thakur-Bhebechhinu Goni Goni Labo (1)

ভেবেছিনু গনি গনি লব সব তারা —
গনিতে গনিতে রাত হয়ে যায় সারা ,
বাছিতে বাছিতে কিছু না পাইনু বেছে ।
আজ বুঝিলাম , যদি না চাহিয়া চাই
তবেই তো একসাথে সব-কিছু পাই —
সিন্ধুরে তাকায়ে দেখো , মরিয়ো না সেঁচে ॥

I had once sought to count all the stars
but the night sky swirled into the dawn
past my never-ending counts
leaving my designs fruitless in her wake.
I wish I had realized then
that her stars had all been mine alone
to own with a single, wondering gaze,
but like a fool, I had picked and sorted.
Know not to do the same, my friend.

(১৬৮/168)

আকাশ কভু পাতে না ফাঁদ
কাড়িয়ে নিতে চাঁদে,
বিনা বাঁধনে তাই তো চাঁদ,
নিজেরে নিজে বাঁধে।

(১৭৪/174)

Rabindranath Thakur-Andhar Ekere Dekhe 1

আঁধার একেরে দেখে একাকার ক’রে।
আলোক একেরে দেখে নানা দিক ধ’রে॥

Darkness smothers the one into uniformity
Light reveals the one in its multifariousness.

(Translated by the poet himself)

ছোটগল্প ৩২ – খগম / Short Story 32 – Khagam

Khagam

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Khagam

খগম – সত্যজিৎ রায়

খগম সত্যজিৎ রায়ের সেরা ভয়ের গল্পগুলোর মধ্যে একটি। ভারতের এক প্রত্যন্ত কোণে ছুটি কাটাতে গিয়ে গল্পের উত্তম পুরুষের (বর্ণনাকারী) সাথে ধুর্জটিবাবু নামের এক বাঙ্গালী ভদ্রলোকের পরিচয় ঘটে। সেখানে থাকাবস্থায় স্থানীয় লোকজনদের কাছে ইমলিবাবা নামের এক সন্ন্যাসী আর তার পোষা সাপের কথা শুনে তারা তাকে দেখতে যান। সাধু-সন্ন্যাসীদের উপর ধুর্জটিবাবুর আগে থেকেই সন্দেহ ছিল, আর তার উপর সাধুবাবার সাথে দেখা করার সময় এমন একটি ঘটনা ঘটে, যাতে ধুর্জটিবাবুর উল্লাস আর অবিশ্বাস আরও পাকা হয়। কিন্তু সেই ঘটনার রাতেই ধুর্জটিবাবুর ব্যবহার রহস্যজনকভাবে বদলে যায়… আর তারপর ঘটনাবলী এমনভাবে অতিপ্রাকৃতের দিকে মোড় নেয়, যে তা আমাদেরকে ভয়ে-বিস্ময়ে বাকরূদ্ধ করে দেয়।

শিড়দাঁড়া বেয়ে শিহরণ খেলে যাওয়ার জন্য কটি লাইন –

‘সাপের ভাষা সাপের শিস, ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌!
বালকিষণের বিষম বিষ, ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌!’

Khagam – Satyajit Ray

Of the scary stories written by Satyajit Ray, Khagam is certainly one of the most spine-chilling. The story starts innocuously enough, with the narrator coming across a fellow Bangalee gentlemen while traveling in a remote part of India. After hearing from the locals about a supposed ascetic and his pet snake, the two decide to pay a visit, the narrator to satisfy his curiosity, and the acquaintance to solidify his doubt. The visit goes much to the latter’s satisfaction, but that night, things take a terrifyingly supernatural turn, leaving the narrator – and us – astonished and terrified.

গল্প ৩১ – ফেলুদা – বোম্বাইয়ের বোম্বেটে / Story 31 – Feluda – Bombaiyer Bombete (The Smugglers of Bombay)

Bombaier Bombete 1পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Feluda-Bombaier Bombete

ফেলুদার গল্প – বোম্বাইয়ের বোম্বেটে – সত্যজিৎ রায়

এর আগের পোস্টে যা লিখেছিলাম, তারই ধারাবাহিকতায় আরেকটি গোয়েন্দা গল্প। ফেলুদাকে নিয়ে। সত্যি বলতে কি, গোয়েন্দা গল্পের ক্ষেত্রে বাংলায় ফেলুদার গল্পসমগ্রের সমতুল্য কিছু আছে বলে আমার মনে হয় না। তবে ফেলুদার গল্পগুলোর শ্রেষ্ঠত্ব শুধুমাত্র যে গোয়েন্দাপ্রবরেরই কারণে, তা নয়। অসাধারণ প্রতিদ্বন্দিতার জন্য দরকার অসাধারণ প্রতিপক্ষের, আর ফেলুদার গল্পের ক্ষেত্রেও কিন্তু তাই। আগের দুটো গল্পে ফেলু মিত্তিরকে দুজন দুর্ধর্ষ রাঘব বোয়ালের সাথে লড়তে হয়েছিল। বোম্বাইয়ের বোম্বেটেতেও তেমনই একজনের সাথে তার দেখা হয়ে যায়। তবে পার্থক্য এই যে আগের দুটো গল্পের খলনায়কদের পরিচয় অচিরেই স্পষ্ট হয়ে উঠলেও চলচ্চিত্রের দুনিয়ায় ঘটা এই গল্পে বাস্তব আর অভিনয়ের পেছনে লুকিয়ে থাকা মুখোশধারীদের খুঁজে বের করা ফেলুদার পক্ষেও প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়।

Feluda’s Adventures – Bombaiyer Bombete (The Smugglers of Bombay) – Satyajit Ray

This time, another story of the unparalleled Bangalee sleuth Feluda. Like all good detective stories, and the two of his exploits previously posted on this site, this too features a villain whose cunning pushes the protagonist to his limits. But unlike the previous stories with their defined adversaries, this one takes place in Bollywood, a world where reality and pretense collude to mask the faces of those who pull the strings.

Bombaier Bombete 2

গল্প ৩০ – ফেলুদা – গোরস্থানে সাবধান / Story 30 – Feluda – Gorosthane Shabdhan (Beware in the Graveyard)

Gorosthane Shabdhan 1

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray – Feluda – Gorosthane Shabdhan

ফেলুদার গল্প – গোরস্থানে সাবধান – সত্যজিৎ রায়

এপর্যন্ত এই ওয়েবসাইটে যেসব লেখাগুলো তোলা হয়েছে, সেগুলো আপলোড করার সময় অনেক গোয়েন্দা গল্প হাতে থাকলেও দৈর্ঘ্যের কারণে সেগুলো তুলে দেওয়া থেকে বিরত থেকেছি। আজকালকার দিনে কয়েক পৃষ্ঠার বেশি গল্প পরার সময় মানুষের কোথায়? তবে বিগত কিছু দিন থেকেই খেয়াল করছি যে অনেক পাঠক ফেলুদার যত কান্ড কাঠমান্ডুতে – যা কিনা এখন পর্যন্ত এই সাইটের একমাত্র গোয়েন্দা গল্প – ডাউনলোড করছেন। সেজন্যেই আজ উৎসুক পাঠকদের জন্যে আরেকটি গল্প তুলে দিচ্ছি – যা আমার মতে ফেলুদার কাহিনীগুলোর মধ্যে অন্যতম সেরা। গোরস্থানে সাবধান গল্পটি শুরু হয় কলকাতার বিখ্যাত পার্ক স্ট্রীট সমাধিক্ষেত্রে, যেখানে ঘুরতে গিয়ে ফেলুদা, তোপসে ও লালমোহনবাবু আকস্মিকভাবে একটি পুরোনো কবর রহস্যজনক ও অর্ধখোঁড়া অবস্থায় আবিস্কার করেন। ঘটনাটির তদন্ত তাদেরকে সেখান থেকে নিয়ে যায় পুরোনো কলকাতার জীর্ণ সাহেবপট্টি থেকে আধুনিক কলকাতার এক সুরম্য প্রাসাদে… আর ফেলুদাকে লড়তে হয় এমন একজনের প্রতিদ্বন্দীর সাথে, যাকে শুধুমাত্র গডফাদার উপাধিটাই মানায়।

Gorosthane Shabdhan 3

Feluda’s Adventures – Gorosthane Shabdhan (Beware in the Graveyard) – Satyajit Ray

Till now, I have largely refrained from uploading detective stories on this site, the reason being their length. After all, few people have the time to read more than a few pages of literature these days. Lately, however, I have noticed that a lot of my readers so far have downloaded Jato Kando Kathmandute (The Criminals of Kathmandu), a story of the Bangalee detective Feluda, and the only detective story in this site so far. So, due to popular demand, here is another of his stories – and perhaps one of the best. In Gorosthane Shabdhan (Beware in the Graveyard), Feluda and his companions come across a partially excavated old tomb in Kolkata’s Park Street Cemetery, the investigation of which leads them to the decaying Anglo-Indian residences of old Kolkata and a palatial residence in the new town. And Feluda comes across an adversary who can only be described as a godfather.

satyajit-ray-feluda-gorosthane-shabdhan-2

ছোটগল্প ২৯ – বর্ণান্ধ / Short Story 29 – Barnandha (Colour-Blind)

Barnandha

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyaijt Ray-Barnandha

বর্ণান্ধ – সত্যজিৎ রায়

সত্যজিৎ দুর্দান্ত ছবি আঁকতেন বলেই হয়তো তার অনেক লেখাতে চিত্রশিল্পীদের কথা উঠে আসে। এবার সেরকমই একটি গল্প, একজন শিল্পীর, আর অনেকটুকু বিষন্নতার।

Barnandha (Colour-Blind) – Satyajit Ray

Artists and painters have always occupied a special place in Satyajit Ray’s writings, perhaps because the man himself was prolific on the sketchpad. In this post, we look at one of his stories – about an artist, and of sadness.

ছোটগল্প ২৮ – ছক্কা / Short Story 28 – Chhakka (6 x 6)

Chhakkaপিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Zafar Iqbal-Chhakka

ছক্কা – জাফর ইকবাল (আমড়া ও ক্র্যাব নেবুলা হতে সংগ্রহিত)

ছোট ছেলেদের বৈজ্ঞানিক চিন্তাভাবনা আর ব্যক্তিগত দৃষ্টিকোণ থেকে সম্ভাবনা কিভাবে ভাগ্য হয়ে ওঠে, তা নিয়ে একটি মজার গল্প।

Chakka (6 x 6) – Zafar Iqbal (from Amra O Crab Nebula)

A humorous story about a child’s scientific thought, and how “luck is probability taken personally”.