ছোটগল্প ৬১ – টেরোড্যাক্টিলের ডিম / Short Story 61 – Pterodactyl er Dim (The Pterodactyl’s Egg)

Satyajit Ray-Pterodactyl Er Dim

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Pterodactyl er Dim

টেরোড্যাক্টিলের ডিম – সত্যজিৎ রায়

দিনের সমস্ত কাজের শেষে গঙ্গার ধারে বসে থেকে বদনবাবু যখন তার আদরের ছেলের জন্যে মনে মনে একটি গল্প ফাঁদছেন, তখন হঠাৎই অদ্ভুত এক যন্ত্রসমেত একজন আগন্তুকের আবির্ভাব হয়। বদনবাবু প্রথমে বিরক্ত হলেও ক্রমশ কথাচ্ছলে লোকটি কি করেন না করেন, সেসব কথা উঠে আসে, আর বদনবাবুর বিষ্ময় তাঁর অজান্তেই বেড়ে গিয়ে তাকে হতবাক করে দেয়।

টেরোড্যাক্টিলের ডিম সত্যজিৎ রায়ের একটি গল্প – টাইম মেশিন, সরল বিশ্বাস, আর একজন বাবার তার ছোট্ট ছেলেকে বলার মত গল্প খুঁজে পাওয়া নিয়ে।

The Pterodactyl’s Egg – Satyajit Ray

While unwinding by the Ganga after a long day’s work and trying to come up with a story to tell his little son, Badanbabu comes across a strange man carrying an even stranger contraption. After the initial awkwardness conversation, the man opens up, and Badanbabu learns that travel is not only possible in space, but also time.

Pterodactyl er Dim (The Pterodactyl’s Egg) is at once a sweet and melancholy story – of time travel, naivety, and a father’s finally finding a good story to tell to his young son. Do read it, especially if you happen to be a father.

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.