কবিতা ৮২ – ভক্তিভাজন / Poem 82 – Bhaktibhajan (Worthy of Devotion)

দীর্ঘ বিরতি বাদে আজ একটি পোস্ট। কিছুদিন আগে একজন কাছের মানুষের সাথে এই যুগের ধর্মব্যাখ্যাকারীদের আত্মম্ভরিতা নিয়ে কথা হচ্ছিল। তখন প্রসঙ্গক্রমে রবিঠাকুরের ভক্তিভাজন কবিতাটির কথা মনে পরে গেল। শুধু চারটি পংক্তিতে রবিঠাকুর মানবচরিত্রের কি যে অসাধারণ ব্যাখ্যা দিয়ে গিয়েছেন, তা লিখে বর্ণনা করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়, তাই পাঠকদের উপলব্ধির জন্যে একটি অনুবাদসহ কবিতাটি তুলে দিলাম।

A long break later, another post. A few days earlier, I was talking with a person close to my heart about godmen and their claims of divinity, and our conversation reminded me about this little gem by Thakur. It is striking how the sage condenses profound truths in little verses, and how in their beauty and simplicity, they stay in the heart. So I thought I would put it here for your contemplation. The Bangla version, and a simple translation by yours truly, follows.

ভক্তিভাজন

রথযাত্রা, লোকারণ্য, মহা ধুমধাম,
ভক্তেরা লুটায়ে পথে করিছে প্রণাম।
পথ ভাবে আমি দেব রথ ভাবে আমি,
মূর্তি ভাবে আমি দেব–হাসে অন্তর্যামী।

BhaktiBhajan

As the chariot moves, amidst pomp
and a thousand devotees who
prostrate themselves in its path,
The road thinks, “I must be God”,
as does the chariot. The idol
thinks “It is I”.
The One within silently smiles.

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর / Rabindranath Thakur
(কণিকা হতে সংগ্রহিত / Collected from Kanika)

Advertisements

কবিতা ৫৪ – প্রশ্নের অতীত / Poem 54 – Proshner Ateet (Questions and Silence)

Rabindranath Thakur-Proshner Ateet

আজ অনন্ত প্রশ্নের জবাবে অনন্ত নীরবতা নিয়ে একটি অণুকাব্য – প্রশ্নের অতীত – রবিঠাকুরের কলমে।

On questions and silences, a beautiful metaphor by Rabindranath Thakur.

প্রশ্নের অতীত (Questions and Silence)

  হে সমুদ্র, চিরকাল কী তোমার ভাষা
সমুদ্র কহিল, মোর অনন্ত জিজ্ঞাসা।
কিসের স্তব্ধতা তব ওগো গিরিবর?
হিমাদ্রি কহিল, মোর চির-নিরুত্তর।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (কণিকা হতে সংগ্রহীত)

“What language is thine o sea?”
“The language of eternal question.”
“What language is thine, o sky?”
“The language of eternal silence.”

– Rabindranath Thakur (Collected from Stray Birds)

 

কবিতা ১৮ – কুটুম্বিতা-বিচার / Poem 18 – Kutumbita Bichar (Relations)

Rabindranath Thakur-Kutumbita Bichar (3)

আমাদের সমাজে শ্রেণীবিভেদের আজ সুবিধাভোগী যারা, তাদের কপটতা নিয়ে লেখা একটি ছোট কবিতা, রবিঠাকুরের কলমে। প্রতিকী এই কবিতাটি কবিগুরুর কণিকা  গ্রন্থ থেকে সংগৃহিত।

This time, Rabindranath’s tuppence on the hypocrisy of those who benefit from the status-quo. Kutumbita Bichar (Relations) was collected from Thakur’s famous work, Kanika.

কুটুম্বিতা-বিচার

কেরোসিন-শিখা বলে মাটির প্রদীপে,
ভাই ব’লে ডাক যদি দেব গলা টিপে।
হেনকালে গগনেতে উঠিলেন চাঁদা–
কেরোসিন বলি উঠে, এসো মোর দাদা!

While the glass lamp rebukes the earthen
for calling it cousin, the moon rises,
and the glass lamp, with a bland smile, calls her,
“My dear, dear sister.”

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (কণিকা হতে সংগৃহিত)

 

কবিতা ৬ – কুয়াশার আক্ষেপ / Poem 6 – Kuashar Akkhep (Regret of The Mist)

বেশ কিছুদিন ধরেই রবীন্দ্রনাথের ছোট কবিতাগুলোয় ডুবে আছি। খুব একটা গভীরভাবে বুঝছি বললে বেশি বলা হবে, তবে লেখাগুলোর যেটুকু অনুভবের মধ্যে, তার অনেকটুকুই মনে দাগ কাটে। তাই সেরকম একটি কবিতা তুলে দিলাম, যা মানুষের নাগালের মধ্যেকার আদর আর দূরের ভালবাসার গভীরতার তফাৎ নিয়ে লেখা।

Lately, I have been reading quite a few of Rabindranath’s poems. Not that I understand much, but once in a while, I come across a piece that really resonates within me. Here is one such poem, Regret of The Mist, which differentiates between the love of the people near us with that of those who love from far.

কুয়াশার আক্ষেপ

“কুয়াশা, নিকটে থাকি, তাই হেলা মোরে–
মেঘ ভায়া দূরে রন, থাকেন গুমরে!’
কবি কুয়াশারে কয়, শুধু তাই না কি?
মেঘ দেয় বৃষ্টিধারা, তুমি দাও ফাঁকি।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (কণিকা হতে সংগ্রহীত)

কবিতা ৫ – অদৃশ্য কারণ / Poem 5 – Adrishya Karan (The Invisible Cause)

Rabindranath Thakur-Adrishya Karan (1)

(সম্পাদিত প্রতিরুপটির আদি ছবিটি পাওয়া যাবে ড্যানিয়েল ট্রিমের ফ্লিকার পাতায় /Original Taken from Daniel Trim’s Flickr Page)

আজ আমার সবচেয়ে প্রিয় কবিতাগুলোর মধ্যে একটি। রবিঠাকুরের এই লেখাটি এতই সুন্দর ও স্বচ্ছ, যে কবিতাটির ভাষার চাইতে সরল করে কোন ভূমিকা লেখা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই আর ভণিতা না করে কবিতাটি তুলে দিলাম –

অদৃশ্য কারণ

রজনী গোপনে বনে ডালপালা ভ’রে
কুঁড়িগুলি ফুটাইয়া নিজে যায় স’রে।
ফুল জাগি বলে, মোরা প্রভাতের ফুল–
মুখর প্রভাত বলে, নাহি তাহে ভুল।

– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (কণিকা)

This time, one of my favorite poems. In The Invisible Cause, Rabindranath Thakur points out how the one who does and the one who claims the glory for the act often turn out to be very different persons. A translation by the sage, followed by a cruder one from yours truly, follows:

The Invisible Cause

(Version 1 – Translated by the poet himself)

The night opens the flowers in secret and allows the day to get thanks.

(Version 2)

The Night silently kisses the flowers into bloom before leaving,
After which they awake and sing, “We are children of the light.”.
The proud Dawn says, “Indeed.”.

– Rabindranath Thakur (Kanika)