ছোটগল্প ১২২ – ব্যোমকেশ বক্সী – অর্থমনর্থম / Short Story 122 – Byomkesh Bakshi – Arthamanartham (The Root of All Evil)

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Sharadindu Bandyopadhyay-Byomkesh Bakshi-Arthamnartham

ব্যোমকেশ বক্সীর গল্প – অর্থমনর্থম – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

আজ ব্যোমকেশ বক্সীর আরেকটি গল্প। অর্থমনর্থম ব্যোমকেশের অন্যান্য গোয়ন্দাগল্পগুলোর মতই আকর্ষণীয়, তবে তা ছাড়াও গল্পটি ব্যোমকেশ-ভক্তদের কাছে তাৎপর্যপূর্ণ আরেকটি কারণে – সত্যবতীর সাথে সত্যান্বেষীর দেখা যে হয় এই গল্পেই!

Byomkesh Bakshi’s Adventures – Arthamanartham (The Root of All Evil) – Sharadindu Bandyopadhyay

Another of Byomkesh’s detective stories this time. Like all other stories of the sleuth, Arthamanartham (The Root of All Evil) has a good mystery that brings out the detective’s brilliance, but to fans of Byomkesh, it is also a very special for another reason – it is in this story that sleuth meets Satyabati, his future wife.

Advertisements

গল্প ১১১ – ফেলুদা – লন্ডন এ ফেলুদা / Story 111 – Feluda – London e Feluda (Feluda in London)

satyajit-ray-feluda-london-e-feluda

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray – Feluda – London e Feluda

ফেলুদার গল্প – লন্ডনে ফেলুদা – সত্যজিৎ রায়

দুই বন্ধু, একটি দুর্ঘটনা, একটি মৃত্যু, একজন মানুষের স্মৃতি হারানো আর ফেরার মাঝে কেটে যাওয়া চল্লিশেরও বেশি বছর, আর একটি তদন্ত – ফেলুদার আরেকটি প্রত্যাবর্তন, আর এবার শার্লক হোম্‌স এর শহরে।

Feluda’s Stories – London e Feluda (Feluda in London) – Satyajit Ray

Two friends, a boat ride and a drowning, a survivor’s loss of memory, and an investigation forty years later – yes, Feluda again, and this time, in London.

গল্প ১০৫ – ফেলুদা – কৈলাসে কেলেঙ্কারী / Story 105 – Feluda – Kailash e Kelenkari (A Killer In Kailash)

Satyajit Ray-Feluda-Kailash e Kelenkari 1পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Feluda-Kailash e Kelenkari

ফেলুদার গল্প – কৈলাসে কেলেঙ্কারী – সত্যজিৎ রায়

অনেকদিন পর এই সাইটে আবার ফেলুদা – আর এবার এমনই একটি গল্পে, যা এতদিনের বিরতিকে ন্যায্যতা দেওয়ার মতই রহস্য-রোমাঞ্চে ঠাসা। ফেলুদার গল্পগুলোর বেশিরভাগই সত্যজিৎ রায় লিখেছিলেন কোন ব্যক্তিবিশেষ কিংবা পরিবারকে ঘিরে কোন রহস্যকে নিয়ে – যেমনটা আমরা পাই এবার কাণ্ড কেদারনাথে কিংবা ছিন্নমস্তার অভিশাপ এর মত গল্পগুলোতে। কৈলাসে কেলেঙ্কারী সেদিক দিয়ে একটু আলাদা – এই গল্পে ফেলুদাকে লড়তে হয় এমনই একটি চক্রের সাথে, যাদের নাগাল ভারতের প্রতিটি কোণে, আর যাদের কাছ থেকে নিজেকে ও তোপসেদের মুক্ত রাখতে প্রায় পুরো গল্পজুড়েই ফেলুদাকে থাকতে হয় আমাদের অগোচরে। পাঠকদের একটু সুড়সুড়ি দেওয়ার জন্যে গল্প থেকে দুটো অনুচ্ছেদ তুলে দেই –

“কেন মুশকিল কেন?… তবে একটা কথা বলি – একটা অ্যাডভাইস, অ্যাজ এ ফ্রেন্ড – এই সব র‍্যাকেটের পেছনে মাঝে মাঝে এক একটা দল থাকে – গ্যাং – এবং তারা বেশ পাওয়ারফুল হয়। গায়ের জোর বলছি না। পয়সার জোর। পোজিশনের জোর। শিক্ষিত অবস্থাপন্ন লোকেরা যখন নোংরা কাজে নামে, তখন সাধারণ ক্রিমিনালদের চেয়ে তাদের বাগে আনা অনেক বেশি শক্ত হয়, জানেন তো?”

আর এটা ফেলুদার –

“(এটা) আরও বেশি প্রেশাস। চুনি পান্না পৃথিবীতে হাজার হাজার আছে, ভবিষ্যতে সংখ্যায় আরও বাড়বে। কিন্তু কৈলাসের মন্দির বা সাঁচির স্তূপ বা এলিফ্যান্টার গুহা – এসব একটা বই দুটো নেই। হাজার-দু হাজার বছর আগে আমাদের আর্ট যে হাইটে উঠেছিল সে হাইটে ওঠার কথা আজকের আর্টিস্ট ভাবতেই পারে না। সুতরাং সে যুগের আর্ট দেশে যা আছে তাকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। যারা তাকে নষ্ট করতে চায় তারা ক্রিমিন্যাল। আমার মতে ভূবনেশ্বরের যক্ষীকে হত্যা করা হয়েছে। যে করেছে তার কঠিন শাস্তি হওয়া দরকার।”

অমূল্য প্রত্নসম্পদ, সঙ্ঘবদ্ধ পাচারকারী ও গোয়েন্দা প্রদোষ চন্দ্র মিত্র… তিন ‘প’তে মিলে ফেলুদার আরেকটি দুর্দান্ত গল্প – কৈলাসে কেলেঙ্কারী – পাঠকদের জন্যে।

Feluda’s Adventures – Kailash e Kelenkari (A Killer in Kailash)

A long break later, a Feluda upload again – and this time, a story that is certainly worth the long wait that has been for some of you. While most of Feluda’s stories were centred on mysterious families and/or individuals (Chinnamaster Abhishap and Ebar Kando Kedarnath e are cases in point) Kailash e Kelenkari (A Killer in Kailash) is a big departure from that trend – in this story, our favorite sleuth faces a syndicate that not only is pan-Indian in its reach, but also murdurous in its smuggling of ancient Indian artifacts abroad. Interestingly, unlike Feluda’s other adventures, this story is one with a somewhat nationalistic tone – a generous dose of James Bond added to the usual Holmesian narrative, if you ask me… but far from diluting the plot, that only adds to its thrill. ‘For your eyes only’, therefore, this upload. Enjoy!

Satyajit Ray-Feluda-Kailash e Kelenkari 2

গল্প ৯৬ – ফেলুদা – রয়েল বেঙ্গল রহস্য / Story 96 – Feluda – Royal Bengal Rahasya (The Royal Bengal Mystery)

Satyajit Ray-Feluda-Royal Bengal Rahasya 1

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Feluda-Royal Bengal Rahasya

ফেলুদার গল্প – রয়েল বেঙ্গল রহস্য – সত্যজিৎ রায়

এবার ফেলুদার আরেকটি গোয়েন্দাকাহিনী। কলকাতায় তখন গ্রীষ্ম, আর ফেলুদারাও বসে, তেমনই এক সময় ডুয়ার্স হতে মহীতোষ সিংহরায় নামের এক জমিদারের কাছ থেকে লালমোহন বাবুর কাছে এক নিমন্ত্রণপত্র আসে। মহীতোষবাবুর সাথে লালমোহন বাবুর পত্রালাপ থাকলেও ফেলুদার সাথে ছিল না, কিন্তু তার চিঠির শেষটুকু ছিল এইরূপ –

“আপনার বন্ধু শ্রীপ্রদোষ মিত্র মহাশয়ের ধুরন্ধর গোয়েন্দা হিসাবে খ্যাতি আছে বলিয়া শুনিয়াছি। আপনি তাহাকে সঙ্গে করিয়া আনিতে পারিলে তিনি হয়তো আমার একটা উপকার করিতে পারেন। কি স্থির করেন পত্রপাঠ জানাইবেন।”

অতঃপর ফেলুরাদের ডুয়ার্সের উদ্দেশ্যে যাত্রা, আর রয়েল বেঙ্গল রহস্যের শুরু। মহীতোষবাবুর জমিদারীতে পৌঁছানোর পর ফেলুদারা জানতে পারেন যে সিংহরায় পরিবারের এক পূর্বপুরুষ এককালে বহু পারিবারিক ধনরত্ন পাগলামীর বশে এক গোপন জায়গায় লুকিয়ে  তা খুঁজে বের করার জন্যে একটি ধাঁধা রেখে গিয়েছিলেন। ফেলুদার কাছে অবশেষে তাদের নিমন্ত্রিত হওয়ার মূল কারণটি স্পষ্ট হয়, আর কাজটি নিতে ফেলুদা সম্মতও হয়। কিন্তু সেই রাতেই বনের মাঝে লোকজনের গোপন আনাগোনা তার চোখে পরে, আর পরদিন বনের মধ্যে মহীতোষ বাবুর সহকারী তড়িৎবাবুর বাঘে-খাওয়া লাশের সন্ধান মেলে। ফেলুদা দুটো রহস্যই উদঘাটনের সিদ্ধান্ত নেয়, কিন্ত তার ফলে সিংহরায় পরিবারের অনেক অপ্রিয় গোপন কথা এক এক করে বেরিয়ে আসতে শুরু করে।

রয়েল বেঙ্গল রহস্যের শুরুতেই সত্যজিৎ রায় গল্পের ধাঁধাটি তুলে দিয়েছিলেন, আমিও পাঠকদের সুড়সুড়ি দেওয়ার জন্যে নাহয় তাই করি। তাছাড়া ছায়াছবি দেখতে যারা ভালবাসেন, তাদের জন্যে সত্যজিৎ রায়ের গল্পটি থেকে বানানো সিনেমাটির ইউটিউব লিঙ্কটিও নিচের ছবিটিতে সংযুক্ত করে দিলাম।

মুড়ো হয় বুড়ো গাছ
হাত গোন ভাত পাঁচ
দিক পাও ঠিক ঠিক জবাবে।

ফাল্গুন তাল জোড়
তার মাঝে ভুঁই ফোঁড়
সন্ধানে ধন্দায় নবাবে।

Feluda’s Stories – Royal Bengal Rahasya (The Royal Bengal Mystery) – Satyajit Ray

In this upload, another Feluda Adventure: During an unbearable summer in Kolkata, Lalmohan Babu receives an invitation to visit from an acquaintance, Mohitosh Singha Roy, a rich zamindar from Assam. In the letter, Feluda is invited as well, with a hint from Mr. Singha Roy that Feluda would be able to do a favor to him. Feluda and co. accept, and a few days later, arrive in Mr. Singha Roy’s estate in the forests of Dooars. It turns out that a long time ago, one of Mr. Singha Roy’s ancestors had hidden his family’s treasure, and ciphered the location in six lines of rhyme that had remained with the Singha Roy family since. Feluda accepts the challenge to decode it, but that very night, Mohitosh Babu’s secretary disappears and his partially eaten body is found in the forest the next day. Feluda is now left with two mysteries to solve, with the shadow of a man-eating tiger looming large over it all.

For those who love movies, a link to the YouTube video is the in the picture below.

Satyajit Ray-Feluda-Royal Bengal Rahasya 2

ছোটগল্প ৮৫ – ব্যোমকেশ বক্সী – পথের কাঁটা / Short Story 85 – Byomkesh Bakshi – Pather Kanta (The Thorn in the Way)

 Sharadindu Bandyopadhyay-Pather Kanta

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Sharadindu Bandyopadhyay-Byomkesh-2 Pather Kanta

ব্যোমকেশ বক্সীর গল্প – পথের কাঁটা – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্প্রতি লক্ষ্য করেছি যে এই সাইটের পাঠকদের মধ্যে অনেকেই আসেন ব্যোমকেশ বক্সীর গল্প পড়তে। অথচ এ পর্যন্ত ব্যোমকেশের গল্প তুলেছি মাত্র একটি, তাই আজ ব্যোমকেশ-ভক্তদের জন্যে আরেকটি গল্প তুলে দিলাম। পথের কাঁটার প্রেক্ষাপট বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকের কলকাতা, আর গল্পটির শুরু দিনে-দুপুরে খোলা রাস্তার মাঝে ঘটা কিছু রহস্যজনক খুনের মধ্যে দিয়ে। প্রথম কটি খুনের তদন্তে ব্যোমকেশের ডাক না পড়লেও পরের দিকে তার হাতে খুনগুলোর সাথে সম্পর্কিত একটি ঘটনার তদন্তভার এসে পরে। আর ফলস্বরূপ ব্যোমকেশকে নামতে হয় এমন এক আততায়ীর সন্ধানে, যার বুদ্ধি আর অভিনবত্ব দুটোই অসাধারণের কাতারে। ব্যোমকেশকে নিয়ে শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা দ্বিতীয় গল্প এটি, যা প্রথমটির মতই রহস্যপ্রিয় পাঠকদের মন ধরে রাখবে।

Byomkesh Bakshi’s Adventures – Pather Kanta (The Thorn in the Way) – Sharadindu Bandyopadhyay

Lately, I have noticed that a lot of the visitors on this site come looking for stories of Byomkesh Bakshi. So, in deference to popular demand, here is his second adventure – one that is perhaps more novel than the first. Pather Kanta (Obstruction) starts with the mysterious deaths of several wealthy men in Kolkata amidst crowds in broad daylight. As the police struggle to find the killer, Byomkesh parses out certain traits that are common to the supposed murderer, and when the survivor of an attempt presumably made by the killer turns up on his doorstep, Byomkesh finds himself hot on the trail of an illusive assassin. For Byomkesh fans as well as those who are uninitiated, this is a gripping story that you will surely enjoy.

ছোটগল্প ১৩ – বাতিকবাবু / Short Story 13 – Batikbabu (A Man of Strange Habits)

Batikbabuপিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Batikbabu

বাতিকবাবু – সত্যজিৎ রায়

ছুটিতে দার্জিলিং বেড়াতে গিয়ে গল্পের উত্তম পুরুষ (ফার্স্ট পারসন) এর সাথে বাতিকবাবু নামের এক অদ্ভুত ভদ্রলোকের সাথে পরিচয় হয়। বাতিকবাবুর কিছু অভ্যাস তার চারপাশের মানুষদের ব্যাঙ্গ উদ্রেক করলেও সময়ের সাথে সাথে তার মধ্যেকার একটি অতীন্দ্রীয় (এক্সট্রাসেন্সরি) ক্ষমতা আমাদের কাছে ক্রমশই স্পষ্ট হয়ে ওঠে, এবং গল্পটিকে নিয়ে যায় একটি রোমহর্ষক পরিণতির দিকে।

Batikbabu (A Man of Strange Habits) – Satyajit Ray

In this story, the narrator, who is on a vacation in Darjeeling, meets an eccentric man named Batikbabu. Although the man is much ridiculed by the locals for his habits, it soon becomes clear to us that Batikbabu’s eccentricity is due to a singular extrasensory perception – one that leads the story to a chilling end.