ছোটগল্প ১২৮ – নিধিরামের ইচ্ছাপূরণ / Short Story 128 – Nidhiramer Ichchhapuran (Nidhiram’s Wish)


পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Nidhiramer Ichchhapuran

নিধিরামের ইচ্ছাপূরণ – সত্যজিৎ রায়

এই সাইটে লেখা তোলার মাঝে বিরতিগুলো ক্রমশই দীর্ঘতর হয়ে চলছে। অবশ্য ‘বিরতি’ মানে যখন দৈনন্দিন কাজ, তখন সেটা কি অস্বাভাবিক? সামনের মাসগুলোতে আরেকটু বেশি সময় পাব আশা করি, তবে আজ অন্য কথা বলি। আমাদের সবার মনেই তো কত অপূর্ণ বাসনা থাকে তাই না? ছোট্ট অথচ কঠিন ইচ্ছেগুলোর কথাই নাহয় বলি – স্বপ্নের চাকরিটা যদি হতো, যদি আরেকটু লম্বা হতে পারতাম, কিংবা যদি মাথার উপরের টাকটুকু চুলে ঢাকা থাকত? বাস্তবজীবনে হয়তো সেসব ইচ্ছেগুলো অপূর্ণই থেকে যায়, কিন্তু তাই বলে কল্পনা কেন আটকে থাকবে? সত্যজিৎ রায়ের কলমে নিধিরামের ইচ্ছাপূরণ তা নিয়েই একটি গল্প।

Nidhiramer Ichchhapuran (Nidhiram’s Wish) – Satyajit Ray

The intervals at which I post stories here are getting longer and longer – part of it has to do with my work keeping me busy. With luck, things will become better in the coming months, but in the meantime, in a way of breaking silence, a story. Nidhiram er Icchapuran (Nidhiram’s Wish) is one of those light but somewhat curious stories by Satyajit Ray. If you are an average person, you must have a wish or two – say a dream job, if you are unhappy with your work, or a little more hair on your forehead, if you are balding? Can those wishes ever come true in innocent ways? In this story, Ray imagines how they might.

Advertisements

ছোটগল্প ১০১ – প্রফেসর শঙ্কু – প্রফেসর শঙ্কু ও হাড় / Short Story 91 – Professor Shanku – Professor Shanku O Har (Bones)

Satyajit Ray-Professor Shanku O Harপিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Professor Shanku O Har

প্রফেসর শঙ্কুর গল্প – প্রফেসর শঙ্কু ও হাড় – সত্যজিৎ রায়

প্রফেসর শঙ্কু ও হাড় সত্যজিতের লেখা শঙ্কুর প্রথম গল্পগুলোর একটি। আর সেসব গল্পগুলোর মত এটিতেও আমরা শঙ্কুকে ধী-স্থির ঋষিতুল্য বিজ্ঞানীর বদলে বেপরোয়া একজন হিসেবেই দেখতে পাই। তবে এই গল্পটা সেদিকটা বাদেও প্রফেসরের অন্য গল্পগুলোর চাইতে একটু আলাদা, কারণ এতে শঙ্কু বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধিৎসার বশে যা করেন, তা তাকে আমাদের চিরচেনা নীতিবান এক মানুষের বদলে একজন আত্মসাৎকারীর পর্যায়েই ফেলে দেয়।

Professor Shanku’s Stories – Professor Shanku O Har (Bones) – Satyajit Ray

Professor Shanku O Har is one of the first stories of the scientist written by Satyajit Ray, and like others of its kind, it depicts Shanku as more of a reckless scientist than the almost sage-like person we come across his later depictions. This story is different, however, for another reason: in it, Shanku’s recklessness and curiosity leads him to appropriate someone else’s property – an act that results in severe consequences.

ছোটগল্প ৩২ – খগম / Short Story 32 – Khagam

Khagam

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Khagam

খগম – সত্যজিৎ রায়

খগম সত্যজিৎ রায়ের সেরা ভয়ের গল্পগুলোর মধ্যে একটি। ভারতের এক প্রত্যন্ত কোণে ছুটি কাটাতে গিয়ে গল্পের উত্তম পুরুষের (বর্ণনাকারী) সাথে ধুর্জটিবাবু নামের এক বাঙ্গালী ভদ্রলোকের পরিচয় ঘটে। সেখানে থাকাবস্থায় স্থানীয় লোকজনদের কাছে ইমলিবাবা নামের এক সন্ন্যাসী আর তার পোষা সাপের কথা শুনে তারা তাকে দেখতে যান। সাধু-সন্ন্যাসীদের উপর ধুর্জটিবাবুর আগে থেকেই সন্দেহ ছিল, আর তার উপর সাধুবাবার সাথে দেখা করার সময় এমন একটি ঘটনা ঘটে, যাতে ধুর্জটিবাবুর উল্লাস আর অবিশ্বাস আরও পাকা হয়। কিন্তু সেই ঘটনার রাতেই ধুর্জটিবাবুর ব্যবহার রহস্যজনকভাবে বদলে যায়… আর তারপর ঘটনাবলী এমনভাবে অতিপ্রাকৃতের দিকে মোড় নেয়, যে তা আমাদেরকে ভয়ে-বিস্ময়ে বাকরূদ্ধ করে দেয়।

শিড়দাঁড়া বেয়ে শিহরণ খেলে যাওয়ার জন্য কটি লাইন –

‘সাপের ভাষা সাপের শিস, ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌!
বালকিষণের বিষম বিষ, ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌ ফিস্‌!’

Khagam – Satyajit Ray

Of the scary stories written by Satyajit Ray, Khagam is certainly one of the most spine-chilling. The story starts innocuously enough, with the narrator coming across a fellow Bangalee gentlemen while traveling in a remote part of India. After hearing from the locals about a supposed ascetic and his pet snake, the two decide to pay a visit, the narrator to satisfy his curiosity, and the acquaintance to solidify his doubt. The visit goes much to the latter’s satisfaction, but that night, things take a terrifyingly supernatural turn, leaving the narrator – and us – astonished and terrified.