ছোটগল্প ৬৫ – প্রফেসর শঙ্কু – মহাকাশের দূত / Short Story 65 – Professor Shanku – Mahakasher Dut (The Messenger from the Stars)

Satyajit Ray-Professor Shanku-Mahakasher Dutপিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Professor Shanku-Mahakasher Dut

প্রফেসর শঙ্কুর গল্প – মহাকাশের দূত – সত্যজিৎ রায়

এবারের গল্পের অনেকটুকু সেটির নাম থেকেই বোঝা যায়, তাই এবার নাহয় গল্পের খানিকটা অংশই তুলে দেই –

“তোমরা ভেবে দেখেছ কি, যে এই পাঁচ হাজার বছরের হিসেবে ক্রমশ পিছিয়ে গেলে বেশ কয়েকটা আশ্চর্য তথ্য বেরিয়ে পড়ে? পাঁচ হাজার বছর আগে ঈজিপ্টের স্বর্ণযুগের শুরু সে তো দেখেইছি। আরও পাঁচ হাজার পিছোলে দেখছি মানুষ প্রথম কৃষিকার্য শুরু করেছে, নিজের চেষ্টায় ফসল উৎপাদন করছে। আরও পাঁচ হাজার পিছিয়ে গেলে দেখছি মানুষ প্রথম হাড় ও হাতির দাঁতের হাতিয়ার, বর্শার ফলক, মাছের বঁড়শি ইত্যাদি তৈরী করছে, আবার সেইসঙ্গে গুহার দেওয়ালে ছবি আঁকছে। ত্রিশ হাজার বছর আগে দেখছি মানুষের মস্তিস্কের আকৃতি বদলে গিয়ে আজকের মানুষের মতো হচ্ছে…। পৃথিবীর প্রাচীন ইতিহাসের অনেক অধ্যায় আজও আমাদের কাছে অস্পষ্ট, কিন্তু এই পাঁচের হিসেবে যেটুকু ধরা পড়ছে সেটা আশ্চর্য নয় কি?”

মানব ইতিহাসে বড় বড় অগ্রগতিগুলোর সাথে সমপাতিক একটি ছোট্ট মহাজাগতিক পুনরাবৃত্তির গল্প মহাকাশের দূত , এবং প্রফেসর শঙ্কুর সবচেয়ে ভাবনা-উদ্রেককারী গল্পগুলির মধ্যে একটি।

Professor Shanku’s Stories – Mahakasher Dut (The Messenger from the Stars) – Satyajit Ray

Another of Professor Shanku’s adventures. Mahakasher Dut (The Messenger from Space) is the story of an extraterrestrial event that apparently repeats in synchrony with major events in human history, with the coming occurrence predicted to be in Prof. Shanku’s timeline. This story is undoubtedly one of the most thought provoking of the scientist’s adventures.

Advertisements

ছোটগল্প ১১ – বঙ্কুবাবুর বন্ধু / Short Story 11 – Bankubabur Bandhu (Mr. Banku’s Friend)

Bankubabur Bandhu

পিডিএফ লিঙ্ক / PDF Link: Satyajit Ray-Bankubabur Bandhu

বঙ্কুবাবুর বন্ধু – সত্যজিৎ রায়

সত্যজিৎ রায়ের লেখা ছোটগল্পের মধ্যে ‘বঙ্কুবাবুর বন্ধু’র কথা না বললেই নয়। গল্পটি যখন লেখা হয়, তখন প্রায় সমগ্র বিশ্বসাহিত্যেই ভিনগ্রহের প্রানীকে শত্রু হিসেবে দেখানো হত, তাই বন্ধুভাবাপন্ন এক ‘এলিয়েন’কে নিয়ে লেখা এই গল্পটি ছিল সেকালের পরিপ্রেক্ষিতে বিরাট এক ব্যতিক্রম। ১৯৬৭ এ হলিউডে কাজ করার সময় সত্যজিৎ রায় ভীনগ্রহের প্রাণীর নিয়ে লেখা এই গল্পটির উপরে ‘দি এলিয়েন’ নামের একটি ছায়াছবি বানাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু হলিউডের নোংরা রাজনীতির কারণে তা হয়নি। সত্যজিৎ রায় দেশে ফিরে এলেও গল্পের চিত্রনাট্যটি কিন্তু হলিউডে থেকে গিয়েছিল, আর আশ্চর্যজনকভাবে তার কয়েক বছর পরেই স্পিলবার্গের ‘ই.টি.’ ছাড়া পায়। স্পিলবার্গ অস্বীকার করলেও অনেক সমালোচকই মনে করেন, ‘বঙ্কুবাবুর বন্ধুর’ গভীর প্রভাব ছিল ‘ই.টি.’র উপর

পুনশ্চ – ‘দি এলিয়েন’ নিয়ে সত্যজিৎ রায়ের অভিজ্ঞতা সম্বন্ধে আরও বিস্তারিত পাওয়া যাবে এখানে। তাছাড়া ভারতের রাষ্ট্রীয় ফিল্ম আর্কাইভ হতে চলচ্চিত্রটির একটি পুরোনো প্রচারণা নিচে তুলে দিলাম।

Mr. Banku’s Friend – Satyajit Ray

Of the stories written by Satyajit Ray, Bankubabur Bandhu (Mr. Banku’s Friend) deserves a special mention. When Ray wrote the story, aliens were almost invariably imagined as hostile and brutal in popular culture. Bankubabur Bandhu – an account of how a friendly alien changes the life of an ordinary man for the better – was a huge exception to the zeitgeist of his time. Following its publication, Ray had wished to make a movie named ‘The Alien’ based on the story during his 1967 stint at Hollywood. Unfortunately, he was unaccustomed to the politics there – and his idea never progressed beyond a manuscript for the movie. Dejected, Ray returned to India, but his manuscript remained in circulation in Hollywood. Curiously, Spielberg’s famous movie E.T. came out soon after.

A few teasers: aliens, force field, confidence… Enjoy!

P.s. – If you are interested in the story of ‘The Alien’, you can find a detailed account here. Also, included below is a promotional piece, obtained from the National Film Archive of India, on the movie that was to be.

Image may contain: text